জনপ্রতিনিধি না হয়েও এলাকার উন্নয়নে কাজ করছেন জামিল

প্রকাশিত:বুধবার, ২৪ নভে ২০২১ ০৭:১১

জনপ্রতিনিধি না হয়েও এলাকার উন্নয়নে কাজ করছেন জামিল

সুরমাভিউ:-  আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সিলেট জেলার গোলাপগঞ্জ উপজেলার ১১ নং শরিফগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন বিশিষ্ট সমাজসেবী ও শিক্ষানুরাগী বিশ্ব প্রবাসী শরীফগন্জ উন্নয়ন পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা আহবায়ক এম, জয়নাল আবেদীন জামিল।

আজ শনিবার দুপুরে গোলাপগঞ্জ উপজেলার সমাজসেবা অফিসার মোহাম্মদ নুরুল হকের কাছে তিনি নমিনেশন পেপার জমা দিয়েছেন।

জানা গেছে, ১১ নং শরিফগঞ্জ ইউনিয়নের মেহেরপুর গ্রামের কৃতিসন্তান কানাডা প্রবাসী এম.জয়নাল আবেদীন জামিল একজন দানশীল পরওউপকারী সমাজসেবী অসহায় মানুষের এক আস্থার প্রথিক। তিনি চেয়ারম্যান না হয়েও এলাকায় ব্যাপক উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত রয়েছেন দীর্ঘ একযুগের্ ও বেশি সময় থেকে। সন্ত্রাস , মাদক, চুরি-ডাকাতি ও জুয়া সহ এলাকা থেকে সকল অপরাধমূলক কাজকর্ম বিরুদ্ধে নিয়োজিত থেকে জনগণের সেবাই তার মূল উদ্দেশ্য ছিল। এছাড়াও এলাকার রাস্তাঘাট উন্নয়নের জন্য কাজ করছেন অনেকদিন থেকে।

অন্যদিকে করোনাকালীন সময়ে ১১ নং শরিফগঞ্জ ইউনিয়নের হতদরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে বিনামূল্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ চক্ষু সেবা বিনা মুল্য নিজের বাড়িতে ফ্রি চিকিৎসা প্রদান , সহ করোনা কালিন নিজ অর্থ্যায়নে অক্সিজেন সিলিন্ডার সহ অসহায় মানুষের খোঁজখবর নেওয়া সহ বিভিন্ন ধরনের সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন।অসহায় মানুষদের প্রতিবছর ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পের মাধ্যমে চিকিৎসাসেবা ও দিয়ে আসছেন।

প্রতিবছর রমজান মাসে প্রতিটি এলাকার অসহায় মানুষের মাজে ইফতার সামগ্রী এবং ঈদে হতদরিদ্র মানুষের ঈদ সামগ্রী বিতরণ করে চমক সৃষ্টি করেছেন ইতিমধ্যে। এলাকায় জুয়া, মাদক, চাঁদাবাজি, অসামাজিক কাজ থেকে মানুষকে বিরত রাখার জন্য বিভিন্ন ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করেন। যেভাবে এলাকার মানুষ হয়রানির শিকার না হয় সেই দিকে দৃষ্টি রেখে মানুষের সেবায় নিয়োজিত রয়েছেন প্রতিনিয়ত।

আলাপকালে এম.জয়নাল আবেদীন জামিল জানান, শরীফগন্জ ইউনিয়নকে কাদামুক্ত,দুর্নীতি মুক্ত. সন্ত্রাস মুক্ত ও মাদকমুক্ত ও ন্যায় ও ইনসাফের বিচারের লক্ষে তিনি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে জনগণের সেবক হয়ে কাজ করতে চান।

এম.জয়নাল আবেদীন জামিল আরও বলেন, গত কয়েকবছর থেকে ১১ নং শরিফগঞ্জ ইউনিয়নে কোনো উন্নয়নমূলক কাজ কর্ম হয়নি। আমি অবহেলিত শরিফগঞ্জ ইউনিয়ন বাসীর সেবক হিসাবে কাজ করতে চান, তিনি আরে বলেন সরকারের অনুদানের পাশাপাশি প্রবাসী ভাইদের সার্বিক সহযোগিতায় ইউনিয়নকে বিশ্বের কাছে একটি আধুনিক ইউনিয়ন হিসাবে সু পরিচিত করতে জিবন দিয়ে হলে ও আপ্রান চেষ্টা করে যাবেন।তিনি সবার সমর্থন ও দোয়া কামনা করেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ