কানাইঘাটে চোরাচালান প্রতিরোধে কঠোর অবস্থানে উপজেলা প্রশাসন

প্রকাশিত:বুধবার, ২৭ অক্টো ২০২১ ০৭:১০

কানাইঘাটে চোরাচালান প্রতিরোধে কঠোর অবস্থানে উপজেলা প্রশাসন

কানাইঘাট প্রতিনিধি:-  কানাইঘাট সীমান্ত এলাকা দিয়ে সব ধরনের চোরা চালান প্রতিরোধে উপজেলা প্রসাশন কঠোর অবস্থানে রয়েছে বলে জানিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুমন্ত ব্যানার্জী। সুরইঘাট সীমান্ত এলাকা দিয়ে ভারতে অবৈধ ভাবে মটরশুটি ও মটর ডাল পাচার বন্ধ সহ ভারত থেকে যাতে করে কোন ধরনের অবৈধ মালামাল বাংলাদেশে না আসতে পারে এ জন্য উপজেলা প্রসাশন কঠোর অবস্থানে রয়েছে।

নির্বাহী কর্মকর্তা সুমন্ত ব্যানার্জী বলেন সরকার সীমান্ত এলাকায় চোরা চালান প্রতিরোধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহন করেছে। কানাইঘাটের সীমান্ত এলাকা দিয়ে যাতে করে ভারতে মটরশুটি পাচার না হয় এবং ভারত থেকে কোন ধরনের মালামাল আসতে না পারে এ জন্য তিনি নিজে সহ উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মুনমুন নাহার আশা সীমান্ত এলাকায় প্রতিনিয়ত সরজমিনে দিন ও রাতের বেলা নজরদারী করে যাচ্ছেন। বিশেষ করে মটরশুটি পাচার বন্ধে ইতি মধ্যে উপজেলা প্রসাশনের পক্ষ থেকে বেশ কিছু প্রদক্ষেপ গ্রহন করা হয়েছে।

বিজিবির উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, সুরইঘাট বিজিবি সহ অন্যান্য ক্যাম্পের দায়িত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তাদের চোরা চালান প্রতিরোধে কঠোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি বিজিবি ও থানা পুলিশ চোরা চালান প্রতিরোধে কাজ করে যাচ্ছে। সুরইঘাট বিজিবি ক্যাম্পের সদস্যরা প্রতিদিন মটরশুটি ও মটর ডাল পাচার কালে আটক সহ অনেক যান-বাহন জব্দ করেছে এবং ভারত থেকে চোরাই পথে আসা মাদক দ্রব্য, নাছির বিড়ি, সহ অন্যান্য মালামাল আটকে বিজিবির অনেক সাফল্য রয়েছে।

খুব শীঘ্রই উপজেলা প্রসাশনের পক্ষ থেকে যাতে করে সীমান্ত এলাকা দিয়ে ভারতে অবৈধ ভাবে মটরশুটি পাচার না হয় এ জন্য বিজিবির কর্মকর্তা, থানা পুলিশ, জনপ্রতিনিধি, বাজার ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দ,সাংবাদিক ও পরিবহন শ্রমিক নেতৃবৃন্দের নিয়ে সভা করা হবে বলে নিবার্হী কর্মকর্তা সুমন্ত ব্যানার্জী জানান। সব ধরনের চোরা চালান প্রতিরোধে স্থানীয় প্রসাশন, বিজিবি ও থানা পুলিশকে সহযোগীতা করার জন্য সকল মহলের সহযোগীতা ও চেয়েছেন তিনি।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ