কানাইঘাটে নজরুল হত্যা মামলা সিআইডি থেকে পিবিআইতে হস্তান্তর করার দাবি

প্রকাশিত:বুধবার, ২৩ জুন ২০২১ ০৯:০৬

কানাইঘাটে নজরুল হত্যা মামলা সিআইডি থেকে পিবিআইতে হস্তান্তর করার দাবি

সুরমাভিউ:-  কানাইঘাটে নজরুল ইসলাম হত্যা মামলার তদন্তভার সিআইডি থেকে পিবিআইতে হস্তান্তরের দাবি জানিয়েছেন মামলার বাদী দেলোয়ার হোসেন সহ পরিবারের লোকজন। তারা বলছেন- সিআইডির প্রতি তাদের আস্থা উঠে গেছে। তাই মামলার সুষ্ঠ তদন্তের জন্য ও প্রকৃত খুনীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে মামলাটি সিআইডির কাছ থেকে পিবিআইয়ে তদন্তের আহবান করছেন। এ উদ্দেশ্যে মামলার বাদী ও নিহত নজরুল ইসলামের পুত্র দেলোয়ার হোসেন গত ২০ জুন ইন্সপেক্টর অব জেনারেল পুলিশ (আইজিপি) ও সিলেটের ডিআইজি বরাবরে পৃথক আবেদন দাখিল করেছেন।

আবেদনে তারা উল্লেখ করেন, গেল বছরের ৬ নভেম্বর স্থানীয় সন্ত্রাসী নুরুল ইসলাম, সেলিম উদ্দিন, শাহিন উদ্দিন, মাহিন উদ্দিন, কাইয়ূম উদ্দিন, আশিক উদ্দিন, শহিদ উদ্দিন, ফখর উদ্দিন, জুনেদ আহমদ, কালা মিয়া ও আউলাউদ্দিন উরফে রুবেল বলু ডাকাত সহ ৩/৪ জন অজ্ঞাত সন্ত্রাসী মিলে রাত সাড়ে ১০টার দিকে দেশীয় অস্ত্র শস্ত্র দিয়ে নজরুল ইসলাম উরফে নজুকে পিঠিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। এ হামলায় তিনি মারাও যান।

এরপর দেলোয়ার হোসেন তার পিতা হত্যার ঘটনায় কানাইঘাট থানায় মামলা দায়ের করেন। প্রথম ধাপে মামলার আসামী নুরুল, সেলিশ, শাহিনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ রিমান্ডে নেয়। পরে আশিক উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে প্রেরণ করলে আদালত ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি নেন। পরবর্তীতে কানাইঘাট থানার ওসি বদলী হন। ওসি বদলী হওয়ায় থানার পরিদর্শক (ওসি তদন্ত) জাহিদুল হক মামলার তদন্তভার নেন। তাঁর হাতে মামলা তদন্তভার যাওয়ার পর থেকেই তিনি কোন আসামীকে গ্রেপ্তার করতে রাজি হননি।

এসময় মামলার আসামী শহিদ উদ্দিনকে র‌্যাব-৯ ও সোহেল আহমদকে জৈন্তাপুর থানা পুলিশ গ্রেপ্তার করে কানাইঘাট থানায় হস্তান্তর করে। তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করলেও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জাহিদুল হক রিমান্ডের আবেদন করেননি। পরে সিলেটের পুলিশ সুপারের মতামতের ভিত্তিতে মামলার তদন্তভার কানাইঘাট থানা থেকে সিআইডিতে হস্তান্তর করা হয়। কিন্তু জাহিদুল ইসলামের সাথে সিআইডিতে দায়িত্বপ্রাপ্ত মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মুবশি^র আলী যোগসাজশ থাকায় তিনিও আসামীদের গ্রেপ্তার করতে পারেননি।

এমনকি মামলার বিবাদী ও মামলার পরিচালক আব্দুর রব, মস্তাক আহমদ, নাজিম উদ্দিন সহ নিহতের পরিবারকে আসামী ও তাদের সহযোগিরা সব সময় মামলা তুলে নেওয়া ও প্রাণে হত্যার হুমকি দিচ্ছে। এই মূহুর্তে নজরুল ইসলাম হত্যা মামলা দোলাচলের মধ্যে রয়েছে। তাই সিআইডি থেকে মামলার তদন্তভার পিবিআইয়ে হস্তান্তর করার জোর দাবি জানান নিহতের স্বজনরা।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ