প্রথমবার ডায়নামিক ওয়েবসাইটের মাধ্যমে পাঠদান শুরু করল ‘সিলেট সরকারি কলেজ’

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১ ০৭:০৬

প্রথমবার ডায়নামিক ওয়েবসাইটের মাধ্যমে পাঠদান শুরু করল ‘সিলেট সরকারি কলেজ’

সুরমাভিউ :-  এই প্রথমবার সিলেটে ডায়নামিক ওয়েবসাইটের মাধ্যমে পাঠদান কার্যক্রম শুরু করল ‘সিলেট সরকারি কলেজ’। চলতি বছরের এপ্রিল মাস থেকে www.sylgovcollege.edu.bd এই ওয়েব সাইটে পাঠদান কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হয়।

আধুনিক প্রযুক্তির ওয়েব সাইটে রয়েছে চলমান শিক্ষা কার্যক্রম, ক্লাস রুটিন, পাঠ ও পরীক্ষা পরিকল্পনা, ডিজিটাল ক্লাস কন্টেন্ট, সিলেবাস, নোটিশ বোর্ড, বিভিন্ন পরীক্ষার ফলাফল, বিদ্যমান শিক্ষার্থীর তথ্য, শিক্ষক ও কর্মচারীর তথ্য, শিক্ষার্থীর উদ্ভাবনী প্রজেক্টসমূহ, বিভিন্ন দায়িত্বপ্রাপ্ত ফোকাল পয়েন্টগণের তালিকা, ফটো গ্যালারী, প্রতিষ্ঠানের চলমান কার্যক্রম সংক্রান্ত তথ্য, ভর্তি গাইডলাইন, একাডেমিক ক্যালেন্ডার, একাডেমিক প্রসপেক্টাস,পরীক্ষা পদ্বতি সম্পর্কিত তথ্য, রিসোর্স সম্পর্কিত তথ্য (লাইব্রেরী, ল্যাব, কো-কারিকুলাম এক্টিভিটিস), নিয়ম ও নীতি, ভিডিও গ্যালারী, গুরুত্বপূর্ণ ফাইল ডাউনলোড, গুরুত্বপূর্ণ লিংক, ব্যানার, সর্বশেষ আপডেট, সম্পূর্ণ ডায়নামিক, সম্পূর্ণ রেসপন্সিভ (যেকোনো সময় যেকোনো ডিভাইসে ওয়েবসাইটের কাঠামো পরিবর্তিত না হয়ে সুন্দরভাবে ও সুসজ্জিতভাবে দেখা যাবে), ওয়েবসাইটে ছাত্রছাত্রীদের লগইন প্রসঙ্গসহ বিভিন্ন কার্যক্রম।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ১৯৬৪সালে স্থাপিত সিলেট সরকারি কলেজে পাঠদান দেওয়া হয় উচ্চমাধ্যমিক, ডিগ্রি ও স্নাতক(সম্মান) কোর্স। বর্তমান সরকার ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে এবং আধুনিক শিক্ষা ব্যবস্থাপনার শিক্ষার মান উন্নয়ন ও শ্রেণি শিক্ষা কার্যক্রম সুষ্ঠভাবে পরিচালনার জন্য এই প্রতিষ্ঠানে উচ্চ মাধ্যমিক থেকে ডিগ্রি এবং স্নাতক (সম্মান) শ্রেনি পর্যন্ত ডিজিটাল বাংলাদেশের প্রবর্তন এবং মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টরের মাধ্যমে শ্রেনি শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনার পরিকল্পনা প্রনয়ন করা হয়েছে। যা গত এপ্রিল মাস থেকে ওয়েবসাইটের মাধ্যমে চালু হয়েছে বলে জানা গেছে। অধিদপ্তর নির্ধারিত সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে।

ফলে সিলেট সরকারি কলেজের স্বল্প শিক্ষক নিয়ে এই ওয়েবসাইটের পাঠদান কর্মসূচি পরিচালনা করা সম্ভব হচ্ছে। এ প্রসঙ্গে সিলেট সরকারি কলেজের অধ্যক্ষঅধ্যাপক মাজহারুল ইসলাম প্রতিবেদককে বলেন, আমরা ইতিমধ্যে একাদশ শ্রেণির অর্ধ-বার্ষিক পরীক্ষা ও দ্বাদশ শ্রেণির প্রাক নির্বাচনী পরীক্ষা ওয়েব সাইটের মাধ্যমে সম্পন্ন করেছি, এবং পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী শতকরা ৯০ ভাগেরও বেশি। এখন প্রতিদিনের ক্লাস ওয়েব সাইটে লগ-ইন করার সাথে সাথে সকল শিক্ষার্থীরা তা দেখতে পাবে। কেননা নিত্যদিনের যে ক্লাসটি নেওয়া হবে, সেই ক্লাস ২৪ঘন্টা ব্যাপী থাকবে। পরবর্তীতে তা অন্য পেইজে চলে যাবে। পরেরদিন আবার নতুন করে পর্যায়ক্রমে ক্লাস শুরু হবে।

ওয়েবসাইটে পরীক্ষা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, যে সকল শিক্ষার্থী সিলেট সরকারি কলেজের আওতায় রয়েছে তাদের জন্য অ্যাসাইনমেন্টেরমাধ্যমে পরীক্ষার প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে এবং তা চলমান থাকবে। একাডেমিক ও পরীক্ষা সংক্রান্ত বিষয়বস্তু জানতে সব সময় শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদেরকে ওয়েবসাইটে চোখ রাখতে হবে। এছাড়া মহামারি করোনাকালে ওয়েবসাইটে শিক্ষা কার্যক্রম দেখে উৎফুল্ল শিক্ষার্থীরাও। কেননা কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ প্রতিরোধে মানুষজন গৃহবন্দি হয়ে উঠেছেন। তাই ঘরে বসেই ওয়েব সাইটের মাধ্যমে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাঠদান কার্যক্রম পেয়ে শিক্ষার্থীরা নতুন মাত্রায় যোগ দিয়ে যাচ্ছেন। শুধু ক্লাস নয়। ক্লাসের সাথে সাথে অধিদপ্তর নির্ধারিত সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে সাপ্তাহিক মূল্যায়ন পরীক্ষা নেয়া হচ্ছে। এভাবে নতুন এই ওয়েবসাইটেরমাধ্যমে একে একে সব পরীক্ষা নেওয়া হবে।

এক পর্যায়ে তিনি আরো বলেন, সিলেটে প্রথমবার সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ডায়নামিক ওয়েবসাইটের মাধ্যমে সিলেট সরকারি কলেজে পাঠদান কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হয়েছে ওয়েবসাইটের মাধ্যমে। এখানে নিয়মিত ক্লাস ও পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে। তাছাড়া এই ওয়েব সাইটের মাধ্যমে নিত্যদিনের মেধা চর্চায় ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীরাও আনন্দিত। তাই এই ওয়েবসাইট পরিধি আগামীতে আরও প্রসারিত হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্তকরেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ