২৫ মার্চের গণহত্যা ছিলো বাঙালি জাতিকে চিরতরে নিশ্চিহ্ন করে দেয়ার ষড়যন্ত্র : এড.লুৎফুর রহমান

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার, ২৫ মার্চ ২০২১ ১০:০৩

২৫ মার্চের গণহত্যা ছিলো বাঙালি জাতিকে চিরতরে নিশ্চিহ্ন করে দেয়ার ষড়যন্ত্র : এড.লুৎফুর রহমান

সুরমাভিউ:- সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এড.লুৎফুর রহমান বলেন,বাঙালি জাতিকে চিরতরে স্তব্ধ করে দিতে ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ অত্যাধুনিক অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে তৎকালীন পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী নিরস্ত্র বাঙালীর ওপর নির্বিচারে গণহত্যা চালায়। ‘অপারেশন সার্চলাইট’ নামে অভিযানটি পরিচালনার মাধ্যমে তারা স্বাধীনতাকামী ছাত্রজনতার প্রতিরোধকে স্তব্ধ করে দিতে চেয়েছিল।

তিনি এ দিনে পরম শ্রদ্ধার সঙ্গে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্মরন করে বলেন, যার নেতৃত্ব ও দিকনির্দেশনায় দীর্ঘ নয় মাস সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত হয় বাংলার মহান স্বাধীনতা। এছাড়াও বক্তারা সশ্রদ্ধচিত্তে স্মরণ করেন ২৫ মার্চ কালরাতের নৃশংস হত্যাকাণ্ডসহ পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর হাতে নির্মম গণহত্যার শিকার সকল শহীদকে।

সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে মুজিব শতবর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ১০দিনব্যাপী আয়োজিত অনুষ্ঠান মালার আজ (২৫ মার্চ) ৯ম দিনে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের লীগের নিবেদনে আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, সকল বাধা পেরিয়ে মুক্তিযুদ্ধের মন্ত্রে উজ্জীবিত হয়ে বাংলাদেশ আজ এগিয়ে চলেছে উন্নতি আর সমৃদ্ধির পথে। দেশকে মধ্যম আয়ের ডিজিটাল বাংলাদেশে পরিণত করার প্রত্যয়ে গৃহীত ‘রূপকল্প-২০২১’ এর সফল পরিসমাপ্তি হতে চলেছে। বাংলাদেশকে ২০৪১ সালে উন্নত-সমৃদ্ধ দেশে পরিণত করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ‘রূপকল্প-২০৪১’ ঘোষণা করেছেন। জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর যুগসন্ধিক্ষণে এসব কর্মসূচি বাস্তবায়নে দলমত নির্বিশেষে সকলকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে অবদান রাখার আহ্বান জানান জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ।

মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেনের পরিচালনায় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মাসুক উদ্দিন আহমদ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মোঃ নাসির উদ্দিন খান।

সভায় আরো বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন ইসলাম কামাল, মোহাম্মদ আলী দুলাল, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আজাদুর রহমান আজাদ, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কবির উদ্দিন আহমদ, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বিধান কুমার সাহা, জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট মোঃ আজমল আলী, মহানগর আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক মহসিন কামরান, মহানগর আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক নাজমুল ইসলাম এহিয়া, জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট মোহাম্মদ আব্বাছ উদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মস্তাক আহমদ পলাশ, মহানগর আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক সেলিম আহমদ সেলিম, জেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক বুরহান উদ্দিন আহমদ, জেলা আওয়ামী লীগের শ্রম সম্পাদক সাইফুর রহমান খোকন, জেলা আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক মোঃ মজির উদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক মতিউর রহমান, মহানগর আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ লায়েক আহমদ চৌধুরী।

আজকের আলোচনা সভায় সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সহ-সভাপতি আলহাজ্ব শফিকুর রহমান চৌধুরী, এডভোকেট শাহ ফরিদ আহমদ, মুক্তিযোদ্ধা সা’দ উদ্দিন আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক এড. রনজিৎ সরকার, উপদেষ্টা এডভোকেট খোকন কুমার দত্ত, সাংস্কৃতিক সম্পাদক সামসুল আলম সেলিম, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা: মোহাম্মদ সাকির আহমদ (শাহীন), কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব, এড. বদরুল ইসলাম জাহাঙ্গীর, এম কে শাফি চৌধুরী এলিম, জাহাঙ্গীর আলম, শাহিদুর রহমান চৌধুরী জাবেদ।

মহানগর আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালিক, জগদীশ চন্দ্র দাস, সাংস্কৃতিক সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত, সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট সৈয়দ শামীম আহমদ, উপ-দপ্তর সম্পাদক অমিতাভ চক্রবর্ত্তী রনি, সহ-প্রচার সম্পাদক সোয়েব আহমদ, উপদেষ্টা এনাম উদ্দিন, কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য এডভোকেট মোহাম্মদ জাহিদ সারোয়ার সবুজ, মুক্তার খান, এমরুল হাসান, সুদীপ দে, সৈয়দ কামাল, নুরুন নেছা হেনা, ওয়াহিদুর রহমান ওয়াহিদ, ইঞ্জিঃ আতিকুর রহমান সুহেদ, জুমাদিন আহমেদ।

মহানগর যুবলীগের সভাপতি আলম খান মুক্তি, সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক জালাল উদ্দিন আহমদ কয়েস, মহানগর তাঁতী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ আবুল হাসনাত বুলবুল। ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ সালাউদ্দিন বক্স সালাই (১১নং), ফখরুল ইসলাম ফখরুল (১৩নং), শেখ সোহেল আহমদ কবির (২৩নং)।

সভার শুরুতেই পবিত্র কুরআন থেকে তেলাওয়াত করেন জেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক এমাদ উদ্দিন মানিক এবং পবিত্র গীতা পাঠ করেন মহানগর আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক তপন মিত্র।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ