কানাইঘাটে জনতার হাতে মটর-সাইকেল চোর আটক

প্রকাশিত:রবিবার, ২১ মার্চ ২০২১ ০৯:০৩

কানাইঘাটে জনতার হাতে মটর-সাইকেল চোর আটক

সুরমাভিউ ডেক্স:-  কানাইঘাটে মটর সাইকেল চুরি করতে গিয়ে ফয়েজ তালুকদার নামের এক চোর জনতার হাতে আটক হয়েছে।

গত শনিবার উপজেলার গাছবাড়ী বাজার সংলগ্ন ফুটবল মাঠ থেকে তাকে মটর সাইকেলের তালা ভাঙ্গার সময় হাতে নাতে আটক করে জনতা। আটকের পর তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

আজ রবিবার তাকে আদালতে সোর্পদ করেছে থানা পুলিশ। জানা যায় সম্প্র্রতি সময়ে গাছবাড়ী বাজার সহ আশাপাশ এলাকা থেকে দিনের বেলা রাখা অনেকের দামী দামী মটর সাইকেল চুরির ঘটনা ঘটে। কিন্তু কোন চোরকে আটক বা চোরাইকৃত কোন মোটর সাইকেল উদ্ধার করা যায়নি।

গত এক সপ্তাহের মধ্যে এ এলাকার ফুটবল মাঠ সহ বিভিন্ন স্থান থেকে কয়েকটি মটর সাইকেল চুরি হয়। এর মধ্যে সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দুটি মটর সাইকেল চুরির দৃশ্য ধরা পড়ে। এতে থানায় জিডিও করেন মটর সাইকেল এর মালিকরা। কিন্তু মটর সাইকেল চুরির দৃশ্য সিসি ক্যামেরায় ধারন হলেও চোরদের পরিচয় সনাক্ত করা যায়নি।

সিসি ক্যামেরায় ধারনকৃত মটর সাইকেল চুরির সাথে জড়িত সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই উপজেলার আনোয়ারপুর গ্রামের ইসলাম উদ্দিন তালুকদারের পুত্র পেশাদার মোটর সাইকেল চোর ফয়েজ তালুকদার গত শনিবার বিকেল ৫টার দিকে একটি মটর সাইকেলের লক ভেঙ্গে চুরি করে নিয়ে যাওয়ার সময় তাকে ধরে ফেলেন জনতা। এরপর ফয়েজ তালুকদারকে উত্তম মাধ্যম দিলে সে কিভাবে তার সহযোগীদের নিয়ে গাছবাড়ী বাজার থেকে কয়েকটি মটর সাইকেল চুরি করে নিয়েছে তা স্বীকার করে। পরে পুলিশ থাকে থানায় নিয়ে এসে জিজ্ঞাসাবাদ করলে ফয়েজ তালুকদার কিভাবে তার সহযোগীদের নিয়ে মটর সাইকেল চুরি করে ছিল তা স্বীকার করে চাঞ্চল্যকর তথ্য দেয়।

পুুলিশ সূত্রে জানা গেছে ফয়েজ তালুকদার একজন পেশাদার মটর সাইকেল চোর। সে দীর্ঘদিন ধরে তার সহযোগীদের নিয়ে সিলেটের বিভিন্ন এলাকা থেকে অভিনব কায়দায় মটর সাইকেল চুরি করে দেশের বিভিন্ন এলাকায় বিক্রি করত তারা। কয়েকবার পুলিশের হাতে মটর সাইকেল চুরির ঘটনায় গ্রেফতার হয় সে। জামিনে বেরিয়ে এসে পুনরায় মটর সাইকেল চুরির পেশায় জড়িয়ে পড়ে ফয়েজ তালুকদার। তার বাড়ী সুনামগঞ্জে হলেও সিলেটের দক্ষিন সুরমার গোজারখলায় বসবাস করে আসছে মটর সাইকেল চোর ফয়েজ তালুকদার।

মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা থানার এসইআই সনজিত কুমার রায় জানিয়েছেন মটর সাইকেল চুরির ঘটানার মূল হোতা ফয়েজ তালুকদার এর কাছ থেকে চাঞ্চল্যকর তথ্য সহ তার সহযোগীদের নাম পাওয়া গেছে। চোরাইকৃত মোটর সাইকেল গুলো উদ্ধার ও মামলার আরো অধিকতর তদন্তের স্বার্থে আদালতে তার বিরুদ্ধে পুলিশ রিমান্ড চাওয়া হবে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ