শাল্লায় সংখ্যালঘু পরিবার ও মন্দিরে হামলা-লুটপাটের প্রতিবাদে বিশ্বনাথে মানববন্ধন

প্রকাশিত:শনিবার, ২০ মার্চ ২০২১ ০৮:০৩

শাল্লায় সংখ্যালঘু পরিবার ও মন্দিরে হামলা-লুটপাটের প্রতিবাদে বিশ্বনাথে মানববন্ধন

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি:-  সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার নওয়াগাঁও গ্রামে মুজিব জন্মশতবার্ষিকীর দিনে সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী কর্তৃক হিন্দুদের বাড়ি-ঘরে এবং মন্দিরে নগ্ন হামলা ও লুটপাটের প্রতিবাদে সিলেটের বিশ্বনাথে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার সকালে পৌর এলাকার বাসিয়া সেতুর উপর উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ, উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদ ও ছাত্র-যুব ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় বক্তারা বলেন, ‘ধর্ম যার যার, রাষ্ট্র সবার’ স্লোগানটি সর্ব ক্ষেত্রে উল্লেখ করা হলেও প্রকৃত পক্ষে এদেশে কিছু সংখ্যক কুচক্রী মহলের স্বার্থ-সিন্ধির জন্য বার বার টার্গেট করা হচ্ছে সংখ্যালঘু পরিবারের সদস্য, পরিবার ও মন্দির-আখড়া-গির্জাকে। এসব ঘটনার সাথে জড়িত প্রকৃত অপরাধীদের সঠিক বিচার করা হলে এমন ঘটনার বার বার সংগঠিত হতো না। সংখ্যালঘু পরিবারের নিরাপত্তার জন্য আরো কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহন করে দ্রুত শাল্লাসহ দেশের সকল স্থানে সংখ্যালঘুদের উপর হামলাকারীদের দৃষ্ঠান্তমূলক শাস্তি প্রদানের জন্য সরকারের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন নেতৃবৃন্দ।

উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি মানিক লাল দের সভাপতিত্বে এবং উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জয়ন্ত কুমার দাশ ও সাংগঠনিক সৎম্পাদক সমীর দে ঝুলনের যৌথ পরিচালনায় প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সুনীল কান্ত দে, উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সমরেন্দ্র বৈদ্য সমর, যুগ্ম সম্পাদক রুনু কান্ত দে, সাংগঠনিক সম্পাদক শংকর দাশ শংকু, দেওকলস ইউনিয়ন পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নিশি পাল।

মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন খাজাঞ্চী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক মেম্বার জ্যোতির্ময় দে মতি, বিশ্বনাথ প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক প্রনঞ্জয় বৈদ্য অপু, দেওকলস ইউনিয়ন পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি শশাংঙ্ক বৈদ্য, লামাকাজী ইউনিয়ন পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অজিত দাশ, সাধারণ সম্পাদক শিল্টু দাশ, অলংকারী ইউনিয়ন পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক বিজিত সরকার, বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়ন পূজা উদযাপন পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক অজিত দেব, দেওকলস ইউনিয়ন হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জয়ন্ত বৈদ্য, বিশ্বনাথ সদর শ্মশান ঘাট রক্ষা কমিটির সভাপতি সুভাশ চন্দ্র দে, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ ও পূজা উদযাপন পরিষদ নেতা ক্ষিতিশ বৈদ্য, জ্যোতিশ বৈদ্য, পিকলু ধর, বাদল বৈদ্য, গৌরাঙ্গ বিশ্বাস, শিল্টু বৈদ্য, উপজেলা ছাত্র-যুব ঐক্য পরিষদের সভাপতি কানু রঞ্জন দে, সহ সভাপতি নেপাল দেব, ছাত্র-যুব নেতা প্রবীর দে, অমিত দেব, বিজয় দেব, মিল্টন দাশ, দিপন দেব, চয়ন দে, বিদ্যুৎ দাশ, শাওন ধর, জয় চন্দ্র দে, পল্লব দাশ, সজীব দে, জয় পাল, দ্বীপ দাশ, সাগর পাল, জয় দাশ, সাগর মালাকার প্রমুখ।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ