নবীগঞ্জের এড়াবরাক খাল খনন কাজ পরিদর্শনে জাইকা ও এলজিইডি কর্মকর্তাগণ

প্রকাশিত:সোমবার, ১৫ মার্চ ২০২১ ০১:০৩

নবীগঞ্জের এড়াবরাক খাল খনন কাজ পরিদর্শনে জাইকা ও এলজিইডি কর্মকর্তাগণ
সুরমাভিউ:-  নবীগঞ্জের এড়াবরাক খাল পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতি লিঃ এর খনন কাজ পরিদর্শন করেছেন জাইকা ও এলজিইডি কর্মকর্তাগণ।

গতকাল সকাল ১০ টায় জাইকা ও এলজিইডি কর্মকর্তাগণ খনন কাজ পরিদর্শনে আসেন। কমকর্তাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন হবিগঞ্জ এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল বাছির, নবীগঞ্জ উপজেলা এলজিইডির প্রকৌশলী সাব্বীর আহমদ, সহকারী প্রকৌশলী মোঃ সাহিদুর রহমান, নবীগঞ্জ উপজেলা এলজিইডির অর্গানাইজার মোঃ সিরাজ মোল্লা, আইডিএস সিলেট মোঃ হাবিবুর রহমান, হবিগঞ্জ এলজিইডির উপ সহকারী ইঞ্জিনিয়ার ক্ষুদ্রকার পানি সম্পদ উন্নয়ন প্রকল্প জাইকা-২ মোঃ মাজহারুল ইবনে মোবারক পিয়াস, ঢাকা থেকে কনসালটেন্ট মির্জা হারুন ও মোঃ আবু তৈয়ব মিয়া।

আরও উপস্থিত ছিলেন এড়া বরাক খাল পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতি লিঃ এর সভাপতি ও নবীগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের উপদেষ্টা কাজী আলহাজ্ব এম.এস সাহেদ মিয়া, সাধারণ সম্পাদক মোঃ মছদ্দর আলী, নবীগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ গোলাম রহমান লিমন, সাধারণ সম্পাদক ফরিদ আহমদ শিকদার প্রমুখ।

সভাপতির বক্তব্যে কাজী আলহাজ্ব এম.এস শাহেদ মিয়া ও সাধারণ সম্পাদক মোহা. মছদ্দর আলী সাহেব  বলেন, ‘কিছু স্বার্থন্বেষী নদী দখল করা লোক এলাকার উন্নয়ন কাজে ইর্ষানিত হয়ে কাজে বাধা সৃষ্টির পায়তারায় মেতে ওঠে। যাতে এটা খনন করা না হয়। কারণ তাদের মধ্যে অধিকাংশই নদী দখল করে ও বিরাট বিরাট গর্ত খুঁড়ে মাছের আড়ৎ জমিয়েছে। এছাড়াও অনেকে ভিটা বাড়ী সহ আবাদি জমি তৈরি করে নদী কে গ্রাসিয়া নদী নামের রেখাকেও বিলীন করে দিয়েছে। আজ সেই  দখল মুক্ত হবার ভয়েই বেকুল হয়ে আবুলতাবুল বখছে তারা। আবার এদের মধ্যে অনেকই এ সমিতির সদস্য হিসেবেও সংযুক্তি রয়েছে।’ বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য কর্মকর্তা মহোদয় গণ এ অবলীলা স্ব-চক্ষে অবলোকন করে সত্যতা উপলব্ধির জন্য উদাত্তকণ্ঠে আহবান জানান।

এলাকা বাসীর পক্ষে সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোহা. মছদ্দর আলী সাহেব। এ-ই জাতীয় উন্নয়ন কাজে যাতে ব্যাঘাত সৃষ্টি না হয় এব্যাপারে এলাকাবাসী ও সুশীল সমাজের লোকজনদের সচেতন থাকার আহবান জানান তিনি।