সিকৃবিতে শিক্ষক সমিতির গবেষণা প্রবন্ধের মোড়ক উন্মোচন ও নবীণবরণ

প্রকাশিত:বুধবার, ১০ মার্চ ২০২১ ০৬:০৩

সিকৃবিতে শিক্ষক সমিতির গবেষণা প্রবন্ধের মোড়ক উন্মোচন ও নবীণবরণ

সুরমাভিউ:-  সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির নতুন কমিটির দায়িত্ব হস্তান্তর ও বৈজ্ঞানিক গবেষণা প্রবন্ধ “বুক অব এবস্ট্রাক্ট” এর মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

১০ মার্চ সকাল ১০টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মিলনায়তনে এই অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয় বলে জানিয়েছে জনসংযোগ ও প্রকাশনা দপ্তর। অনুষ্ঠানে প্রধান পৃষ্ঠপোষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ মতিয়ার রহমান হাওলাদার।

অনুষ্ঠানে বিদায়ী কার্যকরী কমিটির সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ড. মোঃ মোক্তার হোসেনের সঞ্চলনায় ও বিদায়ী সভাপতি প্রফেসর ড. মৃত্যুঞ্জয় কুন্ডের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন প্রফেসর ড. মোহাম্মদ নূর হোসেন মিঞা, প্রফেসর ড. এ এফএম সাইফুল ইসলাম, ড. মোঃ মোস্তফা সামসুজ্জামান, ড. কেএম মেহেদী আদনান, ড. তরিকুল ইসলাম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের শুরুতে নব নিযুক্ত শিক্ষকবৃন্দকে বরণ করে নেয় শিক্ষক সমিতি। এসময় মুজিব জন্মশতবর্ষ উপলক্ষ্যে আয়োজিত “বঙ্গবন্ধু ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট” এর বিজয়ীদের মধ্যেও পুরষ্কার বিতরণ করা হয়। পরবর্তীতে দেশ বিদেশে উচ্চতর শিক্ষায় যে শিক্ষকরা অধ্যয়ণরত ছিলেন বিভিন্ন জার্নালে তাদের প্রকাশিত বৈজ্ঞানিক প্রবন্ধসমূহের উপর “সম্মাননা স্মারক ও সনদ” বিতরণ করা হয়। এবছর বেস্ট পাবলিকেশন এওয়ার্ড পেয়েছেন ড. কে এম মেহেদী আদনান, ড. রানা রায়, ড. অনিমেষ চন্দ্র রায়, মাহমুদুল হাসান, ড. বিশ্বজিৎ দেবনাথ। অনুষদ ভিত্তিক পাবলিকেশন এওয়ার্ড পেলেন মোঃ মতিউর রহমান, অনিমেষ চন্দ্র দাশ, ড. মোঃ মাহমুদুল ইসলাম, ড. মোঃ শাহ আলমগীর, ড. খালিদুজ্জামান এলিন, কাজী মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ।

মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষ্যে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২০ সালের উচ্চমান সম্পন্ন আন্তর্জাতিক ইনডেক্সড জার্নালে প্রকাশিত ১০০ গবেষণা প্রবন্ধের সারসংক্ষেপ নিয়ে একটি বৈজ্ঞানিক গবেষণা প্রবন্ধ উন্মোচন উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান পৃষ্ঠোপোষকের বক্তৃতায় সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ মতিয়ার রহমান হাওলাদার বলেন, তরুণ শিক্ষকদের গবেষণায় মনোযোগী হতে হবে। তিনি বলেন, বর্তমান শিক্ষা ও গবেষণা বান্ধব সরকার শিক্ষা ও গবেষণায় প্রচুর বরাদ্দ প্রদান করেছেন। এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে আমাদের দেশকে এগিয়ে নিতে হবে।

সবশেষে শিক্ষক সমিতির নতুন কার্যকরী কমিটি তাদের দায়িত্ব গ্রহণ করে নেয়।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ