গোলাপগঞ্জে চিকিৎসাধীন আত্মীয়কে দেখা হলো না বৃদ্ধা সালমার

প্রকাশিত:শুক্রবার, ১২ ফেব্রু ২০২১ ০৬:০২

গোলাপগঞ্জে চিকিৎসাধীন আত্মীয়কে দেখা হলো না বৃদ্ধা সালমার

গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধি:-  গত বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টার দিকে গোলাপগঞ্জের ধারাবহরস্থ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন এক আত্মীয়কে দেখতে যাচ্ছিলেন বৃদ্ধা সালমা বেগম (৬০)। এজন্য রাস্তার পাশে গাড়ির জন্য অপেক্ষা করছিলেন। এসময় গোলাপগঞ্জ-ঢাকা দক্ষিণ সড়কের ধারাবহর এলাকার ব্রিটিশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের সামনে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় একটি রেজিস্ট্রেশনবিহীন সিএনজিচালিত অটোরিকশা দ্রুত গতিতে এসে সালমা বেগমকে চাপা দিয়ে চলে যায়।

তৎক্ষণাৎ স্থানীয়রা গুরুতর আহত অবস্থায় সালমা বেগমকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে প্রথমে গোলাপগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক থাকায় কর্তব্যরত ডাক্তার সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে তিনি মারা যান। নিহত বৃদ্ধার উপজেলার পশ্চিম ধারাবহর নালী বাড়ি গ্রামের মৃত আব্দুল মুমিনের স্ত্রী।

ময়না তদন্ত শেষে সালমা বেগমের লাশ শুক্রবার (১২ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।শুক্রবার বাদ আছর স্থানীয় কবরস্থানে মরদেহ দাফন করা হয়েছে।

এদিকে, সিএনজি অটোরিকশা চালক আলতু মিয়ার বাড়ি একই এলাকায়। তিনি ধারাবহর এলাকার মৃত কটন আলীর ছেলে। দুর্ঘটনার পর থেকে চালক আলতু মিয়া পলাতক রয়েছেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ