উন্নত প্রশিক্ষণের মাধ্যমে খাদ্যের গুণগত মান ধরে রাখতে হবে – এম কাজী এমদাদুল ইসলাম

প্রকাশিত:সোমবার, ০৮ ফেব্রু ২০২১ ১০:০২

উন্নত প্রশিক্ষণের মাধ্যমে খাদ্যের গুণগত মান ধরে রাখতে হবে – এম কাজী এমদাদুল ইসলাম

সুরমাভিউ:-  সিলেটের জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম বলেছেন, সিলেট হচ্ছে একটি পর্যটন নগরী। এখানে দেশ ও দেশের বাহির থেকে অনেক পর্যটক বেড়াতে আসেন এবং হোটেল ও রেস্টুরেন্টগুলো খাবার খেতে যান। প্রতিটি হোটেল ও রেস্টুরেন্টে প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত রন্ধন শিল্পীরা থাকলে সিলেটের সুনাম আরো বৃদ্ধি পাবে এবং উন্নত প্রশিক্ষণের মাধ্যমে খাদ্যের গুণগত মান ধরে রাখতে হবে।

তিনি আরো বলেন, টনি খান হোটেল ম্যানেজমেন্ট ইন্সটিটিউট সিলেটে রন্ধন শিল্পী তৈরিতে কাজ করেছে। এখান থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে কাজ করে দেশে ও দেশের বাহিরে উন্নত জীবন গড়ে তুলছেন। বাংলাদেশ রেস্তোরা মালিক সমিতি ও টনি খান হোটেল ম্যানেজমেন্ট ইন্সটিটিউট প্রশিক্ষণের যে উদ্যোগ নিয়েছে তা প্রশংসার দাবি রাখে।

তিনি সোমবার (৭ ফেব্রুয়ারি) নগরীর সুবিদবাজারে বাংলাদেশ রেস্তোরা মালিক সমিতি ও টনি খান হোটেল ম্যানেজমেন্ট ইন্সটিটিউট সিলেটে যৌথ উদ্যোগে সিলেটে ‘খাদ্য নিরাপত্তা, সংরক্ষন ও স্বাস্থ্য’ বিষয়ক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

রেঁস্তোরা মালিক সমিতি সিলেট শাখার সভাপতি খালেদ আহমদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান সিদ্দিকীর পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির সভাপতি এটিএম শোয়েব, সিলেট নিরাপদ খাদ্য অফিসার সৈয়দ সরফরাজ হোসেন।

বক্তব্য রাখেন আন্তর্জাতিক সেফ টিপু রহমান, হেলাল উদ্দিন আহমদ, তামিম বিন ইমদাদ, অরূপ শ্যাম বাপ্পী, সালাউদ্দিন বাবলু, রবীন্দ্র ঘোষ, বদরুল ইসলাম, ফাহাদ আহমদ, আমিনুর ইসলাম রফিক, কিরণ কান্ত নাথ, ইব্রাহিম আহমদ, মাইদুল ইসলাম, অজয় শাহা প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি