পররাষ্ট্র মন্ত্রী ড. এ.কে আব্দুল মোমেন এমপির কাছে সিলেট বিভাগ গণদাবী ফোরামের স্মারকলিপি প্রদান

প্রকাশিত:বুধবার, ০৩ ফেব্রু ২০২১ ০৭:০২

পররাষ্ট্র মন্ত্রী ড. এ.কে আব্দুল মোমেন এমপির কাছে সিলেট বিভাগ গণদাবী ফোরামের স্মারকলিপি প্রদান

সুরমাভিউ:-  পররাষ্ট্র মন্ত্রী, সিলেট-১ আসনের এমপি ড. এ.কে আব্দুল মোমেন এর কাছে সিলেট বিভাগ গণদাবী ফোরামের পক্ষ থেকে সিলেট বিভাগের বিভিন্ন দাবী সম্বলিত একটি স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।

গত ২৯ জানুয়ারি মন্ত্রী সিলেট সফরকালে সিলেট সার্কিট হাউজে গণদাবী ফোরামের নেতৃবৃন্দ তাঁর কাছে এ স্মারকলিপি প্রদান করেন।

স্মারকলিপি প্রদানকালে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সংসদ সদস্য শফিকুর রহমান চৌধুরী, প্রবাসী নেতা সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুক, সিলেট জেলা কর আইনজীবী সমিতির সভাপতি আবুল ফজল এডভোকেট, নবনির্বাচিত সভাপতি অধ্যাপক শফিকুর রহমান, সিলেট বিভাগ গণদাবী ফোরাম কেন্দ্রিয় কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি চৌধুরী আতাউর রহমান আজাদ এডভোকেট, সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান এডভোকেট, সিলেট জেলা কর আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক এমদাদুল হক এডভোকেট, সিলেট বিভাগ গণদাবী ফোরাম সিলেট জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক চৌধুরী দেলওয়ার হোসেন জিলন প্রমুখ।

স্মারকলিপিতে উল্লেখিত বিভিন্ন দাবীর মধ্যে রয়েছে সিলেট মহানগরীর চতুরপাশে তথা ওসমানী বিমান বন্দর-বাদাঘাট-৩য় শাহজালাল সেতু (টুকেরবাজার তেমুখী) হয়ে ওসমানী বিমান বন্দর হতে পূর্ব দিকে সাহেবের বাজার-খাদিম-বটেশ্বর-সিলেট-ফেঞ্চুগঞ্জ সড়কের পরারইচক হতে লালাবাজার পর্যন্ত এবং টুকেরবাজার তেমুখী হতে বাদাঘাট হয়ে বঙ্গবন্ধু আইটি পার্ক পর্যন্ত একটি চারলেন বিশিষ্ট লিংক বা বাইপাস সড়ক নির্মাণ, মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বিজড়িত কীনব্রিজকে ঐতিহাসিক নিদর্শন-ঐতিহ্য ও পুরাকীর্তি হিসেবে সংরক্ষণ এবং মহানগরীর অধিবাসীদের যাতায়াতের সুবিধার্থে কীন ব্রিজের পাশ দিয়ে একটি আধুনিক ঝুলন্ত সেতু নির্মাণ, সিলেটে বিশ্ব বাণিজ্য কেন্দ্র নির্মাণ, প্রকৌশল বিশ^বিদ্যালয় স্থাপন, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন, সিলেট মেরিন একাডেমী স্থাপন, সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাসের নির্মাণ কাজ শুরু, সিলেটে টি টাওয়ার বা বিভাগীয় চা-ভবন নির্মাণ, মহানগর দায়রা জজ আদালত ভবন ও চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত ভবন নির্মাণ, সুরমা নদীর ভাঙ্গন থেকে সিলেট শহরকে রক্ষার লক্ষ্যে টুকেরবাজার হতে হেতিমগঞ্জ পর্যন্ত সুরমা নদীর তীর সংরক্ষণ এবং উভয় তীরে ওয়ার্কওয়ে নির্মাণ, সিলেট মহানগরীর উত্তর-দক্ষিণ ও পূর্ব পাশে কমপক্ষে দু’শ মেগাওয়াট উৎপাদন ক্ষমতাসম্পন্ন ৩টি আধুনিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ, সকল পুরাতন জরাজীর্ণ বিদ্যুৎ সরবরাহ ও সঞ্চালন লাইন পরিবর্তন করে নতুন লাইন স্থাপন ইত্যাদি। বিজ্ঞপ্তি

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ