বায়ান্ন-একাত্তরের অঙ্গিকারে নতুন প্রজন্মকে তৈরি করতে হবে

প্রকাশিত:সোমবার, ০১ ফেব্রু ২০২১ ০৭:০২

বায়ান্ন-একাত্তরের অঙ্গিকারে নতুন প্রজন্মকে তৈরি করতে হবে

সুরমাভিউ:-  বাঙালির চেতনার মাস বায়ান্ন’র ফেব্রুয়ারিকে বরণ করতে সিলেটে সম্মিলিত নাট্য পরিষদ এবার ৮মবারের মতো আয়োজন করল বর্ণমালার মিছিল।

বর্ণমালার মিছিলটি ১লা ফেব্রুয়ারি সোমবার সকাল ১১টায় সিলেট কেন্দ্রীয় শহিদমিনার প্রাঙ্গন থেকে বের হয়ে প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুণরায় শহিদমিনারে এসে শেষ হয়।

মিছিলটি বরণ করে নেয় নৃত্য সংগঠন ছন্দ নৃত্যালয় ভাষা আন্দোলনের প্রেক্ষাপট নিয়ে শহিদমিনারে নৃত্যালেখ্য পরিবেশনার মধ্য দিয়ে। মিছিলে বর্ণমালার শোভিত ফেস্টুন হাতে অংশ নেন সিলেটের বিভিন্ন নাট্য ও সংস্কৃতিক সংগঠনের শিল্পী ও কর্মীবৃন্দ। সম্মিলিত নাট্য পরিষদ, সিলেট’র সভাপতি মিশফাক আহমেদ চৌধুরী মিশুর সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্তের পরিচালনায় বর্ণমালার মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, সম্মিলিত নাট্য পরিষদ, সিলেট বিগত ৩৬ বছর ধরে ভাষা আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করে নাট্য ও সাংস্কৃতিক আন্দোলনে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। ভাষার মাসকে বরণ করতে বর্ণমালার মিছিলটি তাদের নাট্য ও সাংস্কৃতিক আন্দোলনের অন্যতম কর্মসূচী। ভাষা আন্দোলনের আদর্শ ও চেতনায় তরুন ও নতুন প্রজন্মকে ছড়িয়ে দিতে নাট্য পরিষদ অঙ্গীকার পূরণে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। তারা বলেন, ভাষার মাসকে বরণের মাধ্যমে তরুণ প্রজন্ম যেন বাঙালির ইতিহাস-ঐতিহ্যকে লালন করে মাতৃভাষার মর্যাদা রক্ষায় কাজ করে। অনুষ্ঠানে ভাষা আন্দোলনের সকল বীর শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়।

বক্তারা স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসাম্প্রদায়িক স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠায় সকল অপসংস্কৃতি ও অন্যায়ের বিরুদ্ধে বায়ান্ন-একাত্তরের চেতনায় কাজ করার অঙ্গিকারের কথা ব্যক্ত করেন।

বর্ণমালার মিছিলে উপস্থিত ছিলেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, সিলেট জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা দেবজিত সিন্হা, মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার ভবতোষ রায় বর্মণ, সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার (মিডিয়া) বিএম আশরাফুল্লাহ তাহের, সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকী, সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আল-আজাদ, বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য মোকাদ্দেছ বাবুল, সম্মিলিত নাট্য পরিষদের প্রধান পরিচালক অরিন্দম দত্ত চন্দন, মহানগর আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক তপন মিত্র, জেলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক ও সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের কেন্দ্রীয় সদস্য শামসুল আলম সেলিম, সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ইকরামুল কবির, বর্তমান সাধারন সম্পাদক আব্দুর রশিদ রেনু, ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি মাহবুবুর রহমান রিপন, সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারন সম্পাদক সংগ্রাম সিংহ, বর্তমান সাধারন সম্পাদক ছামির মাহমুদ, গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র দেবাশীষ দেবু, ইনোভেটরের নির্বাহী সঞ্চালক প্রণব কান্তি দেব, সমন্বয়ক আশরাফুল ইসলাম অনি, সম্মিলিত নাট্য পরিষদের সহ-সভাপতি উজ্জল দাস, অর্থ সম্পাদক ইন্দ্রানী সেন, নির্বাহী সদস্য ফারজানা সুমি প্রমুখ।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ