চাউলধনী হাওরের কৃষকের খুনিদের শাস্তির দাবীতে প্রবাসীদের তাৎক্ষণিক বিক্ষোভ সভা

প্রকাশিত:সোমবার, ০১ ফেব্রু ২০২১ ০৮:০২

চাউলধনী হাওরের কৃষকের খুনিদের শাস্তির দাবীতে প্রবাসীদের তাৎক্ষণিক বিক্ষোভ সভা

আব্দুল হামিদ খান সুমেদ:- বিশ্বনাথের ঐতিহ্যবাহী বৃহত্তম হাওর চাউলধনীতে নিজেস্ব বোরো জমিতে পানি সেচ দিতে গিয়ে হাওরের বিল ইজারাদার জলদস্যু সাইফুল গংদের আক্রমণে দৌলতপুর ইউনিয়নের চৈতনগর গ্রামের ছরকুম আলী দয়ালকে নির্মমভাবে হত্যার প্রতিবাদে চাউলধনী হাওর রক্ষা পরিষদ ইউকের উদ্যোগে গত শুক্রবার তাৎক্ষণিক এক অনলাইন বিক্ষোভ সভা অনুষ্টিত হয়।

চাউলধনী হাওর রক্ষা পরিষদ ইউকের অন্যতম সংগঠক ও কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব হাজি খলিল উদ্দিন ও মোহাম্মদ মোহাব্বত শেখ’র সার্বিক দিক নির্দেশনা এবং হাবিবুর রহমান জানু ও সাহিদ নূর ইসলামের যৌথ পরিচালনায় মরহুম ছরকুম আলী দয়াল হত্যাকারীদের গ্রেফতার, হাওর পাড়ের কৃষক, জমির মালিক ও খামারিদের প্রতি সাইফুল বাহিনীর অত্যাচার নির্যাতন বন্ধ, চাউলধনী হাওরের বিলের লীজ বাতিল, সাজানো মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং কৃষকের ক্ষতিপূরণের দাবীতে উক্ত বিক্ষোভ সভায় অংশগ্রহণ করেন ও বক্তব্য রাখেন আব্দুল মান্নান মনাফ, মোঃ রমজান আলী, হাজি নেছার আহমদ, মোঃনাসির উদ্দিন(মনাফ), মোঃ নফর আলী, হাজি ফারুক মিয়া, মোঃ মোশারফ আলী, লেবু মিয়া, আজর আলী শফিক, মাশুক আলী, বশির মিয়া, ফারুক আলী(আনোয়ার), কদর উদ্দিন, মোঃআজিম উদ্দিন আজির, সারব আলী, গোলাপ মিয়া, শাহ আব্দুল গৌছ, নিজাম উদ্দিন, গয়াছ আলী, এনামুল হক, আব্দুল হক, আব্দুল হান্নান, বেলাল আহমদ, মাশুক আহমদ(আমেরিকা প্রবাসী), শুকুর আলী, জামিল হোসেন, মোঃ শামসুল ইসলাম, মঈন উদ্দিন মিছবাহ, আব্দুল হামিদ খান সুমেদ, আনহার মিয়া, আনোয়ার হোসেন, সিতাব আলী, জুনেদ আহমদ(পিয়ার আলী), খসরু মিয়া ও আব্দুল করিম প্রমুখ।

এবং উক্ত সভায় বাংলাদেশ থেকে অংশ গ্রহণ করেছিলেন চাউলধনী হাওর ও কৃষক বাঁচাও আন্দোলনের আহবায়ক আবুল কালাম,সদস্য সচিব মাস্টার বাবুল মিয়া,উপদেষ্টা আনোয়ার হোসেন ধন মিয়া(মেম্বার)।

সভায় বক্তারা দয়াল হত্যাকারীদের অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবী জানিয়ে বলেন,যারা চাউলধনী হাওরে লীজ নিয়ে সাব লীজ দিয়ে সরকারের লীজের শর্ত ভঙ্গ করে একটি বাহিনী গঠন করে কৃষক সমাজকে খুন ও হয়রানি করছে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আন্দোলন ঘোষণা করা হবে। বক্তারা আরও বলেন,সাইফুল বাহিনী কতিপয় লোকের ইন্ধন ও আস্কারা পেয়ে কৃষকদের উপর অত্যাচার নির্যাতন করছে কিন্তু প্রশাসন এর কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করছে না বরং সাইফুল বাহিনী কৃষকদের আন্দোলন দমাতে একের পর এক সাজানো মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করছে।আর এর পরিপেক্ষিতে বৃহস্পতিবার নিজের জমিতে পানি সেচ দিতে গিয়ে সাইফুল বাহিনীর নির্যাতনে মৃত্যু বরণ করতে হয়েছে কৃষক দয়ালকে আর এই হত্যাকন্ডের বিষয়টিকে একটি মহল ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার অপচেষ্টা করছে।কৃষক দয়ালকে হত্যা ও কৃষকদের উপর সাজানো মামলা দায়েরে চাউলধনী হাওর পাড়ে এক অজানা আতংঙ্ক বিরাজ করছে।তাই যুক্তরাজ্য প্রবাসীসহ অন্যান্য দেশের প্রবাসীরা তাদের পরিবারকে নিয়ে আতংকে দিন যাপন করছেন।হাওর পাড়ের এই ক্লান্তিকালে মহামারি করোনার কারণে অনেকেই দেশে যাওয়ার ইচ্ছা থাকলেও দেশে যেতে পারছেন না বিধায় দেশের পরিবারের সদস্যদেরকে নিয়ে দুশ্চিন্তারও শেষ নেই সব মিলিয়ে চাউলধনী হাওর দেশ-প্রবাসের মানুষের মধ্যে এক উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠা বিরাজ করছে।

পরিশেষে নিহত দয়ালের বিদেহী রুহের মাগফেরাত কামনা ও তার শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে হাজি খলিল উদ্দিনের পরিচালনায় মোনাজাতের মাধ্যমে সভার সমাপ্তি করা হয়।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ