বিশ্বনাথের চাউলধনী হাওর রক্ষা পরিষদ ইউকের উদ্যোগে হাওর পাড়ের প্রবাসীবৃন্দের আলোচনা সভা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার, ২৯ ডিসে ২০২০ ০৯:১২

আব্দুল হামিদ খান সুমেদ:-  বৃহত্তর সিলেটে বিশ্বনাথের ঐতিহ্যবাহী এবং অন্যতম বৃহত্তম হাওর চাউলধনীর বিল ইজারা গ্রহীতা কর্তৃক পানি শুকিয়ে নিয়ে বোরো ফসল উৎপাদন ব্যাহত করার প্রতিবাদে ও ইজারা বাতিল,বিলের সীমানা চিন্নিত করন,ভেড়িবাঁধ ও সুইচগেইট নির্মাণের দাবীতে চাউলধনী হাওর রক্ষা পরিষদ ইউকের উদ্যোগে হাওরের পাড়ের প্রবাসীদের এক অনলাইন আলোচনা ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্টিত হয়।

 

বর্তমান প্রযুক্তির অন্যতম যোগাযোগ আপস জোমের মাধ্যমে উক্ত সভায় অংশগ্রহণকারী চাউলধনী হাওরের চার পাশের প্রবীণ ও যুবক প্রবাসীবৃন্দ তাদের পৃথক পৃথক বক্তব্যের মাধ্যমে বাংলাদেশের অন্যতম একটি ধান ফসল উৎপাদন ক্ষেত্র চাউলধনী হাওরে জলদস্যু ও অবৈধ পন্থায় বিল খেকুদের কর্তৃক হাওরের নিজেস্ব মালিকানাধীন জমিতে মৎস আরোহনে বাঁধা, পানি শুকিয়ে নিয়ে কৃষকদের বোরো ফসলে ব্যাগাত এবং হাঁস খামারীদের উপর অন্যায় ভাবে নির্যাতনের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

 

এবং উক্ত সন্ত্রাসী কর্ম কান্ডের বিরুদ্ধে হাওরের সকল জমির মালিক এবং সাধারণ কৃষকদেরকে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে অবৈধ পন্থায় বিল ইজারাদার ও তাদের সন্ত্রাসীদের কে হাওর থেকে বিতাড়িত করার জন্য আহবান জানান।

 

এবং হাওরের কৃষকদের দীর্ঘদিনের এই জটিলতা নিরসন করে যথা শিগ্রই হাওরের প্রাচীন অতিহ্য আবারো ফিরে আনার জন্য সরকারি প্রশাসনে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি অনুরোধ জানান।আর অবৈধ পন্থায় বিল খেকুদের কাছ থেকে সাধারণ কৃষকদের দীর্ঘদিনের ক্ষয়-খেতি আদায় করার লক্ষে কঠিন আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য হাওর পাড়ের সর্বস্থরের জন সাধারণের প্রতি আহবান জানিয়ে এবারের বোরো ফসল উৎপাদন না হওয়ায় সাধারণ কৃষকদেরকে ভর্তুকি হিসেবে বিশেষ সরকারি প্রণোদনা দেয়ার জন্য বর্তমান সরকারের প্রতি জোর দাবী জানান।

 

গত ১৪ ডিসেম্বর রোজ সোমবার কমিউনিটি সংগঠক কদর উদ্দিন, মোঃ আজিম উদ্দিন আজির, হাবিবুর রহমান(জানু), আব্দুল হামিদ খান সুমেদ ও শাহ সহিদ নূর ইসলামের উদ্যোগে লন্ডনের হোয়াইট চ্যাপেলের সোনারগাঁও রেস্টুরেন্টে চাউলধনী হাওর পাড়ের প্রবাসীদের এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

 

সারা বিশ্বে চলমান করোনা ভাইরাস ইউকেতে অতি মাত্রায় সংক্রমণের ফলে উপস্থিত সকলের মতামতের ভিত্তিতে পরবর্তী সভা নিজ নিজ বাসস্থান থেকে অনলাইনে অংশগ্রহণ করার সিদ্ধান্তের পরিপেক্ষিতে কমিউনিটি সংগঠক হাবিবুর রহমান (জানুর) সঞ্চালনায় গত ২৭ ডিসেম্বর রোজ রবিবার ইউকে রাত ১১:০০টার সময় শুরু হয়ে প্রায় দীর্ঘসময়ের উক্ত সভায় অংশগ্রহণ করেন প্রবীণ যুক্তরাজ্য প্রবাসী হাজি খলিল উদ্দিন, আব্দুল মান্নান মনাফ, মোঃ রমজান আলী, মোঃ মনির খান, মোহাম্মদ মোহাব্বত শেখ, মোঃ আসকির মিয়া, আব্দুল কুদ্দুস, হাজি ফারুক মিয়া,মোঃ মোশারফ আলী,আজর আলী শফিক,বশির মিয়া, ফারুক আলী (আনোয়ার), কদর উদ্দিন, মোঃআজিম উদ্দিন আজির, নিজাম উদ্দিন, এনামুল হক, আব্দুল হান্নান, বেলাল আহমদ, মাশুক আহমদ (আমেরিকা প্রবাসী), শুকুর আলী, শাহ সাহিদ নূর ইসলাম, মোঃ শামসুল ইসলাম, মঈন উদ্দিন মিছবাহ, আব্দুল হামিদ খান সুমেদ, আনহার মিয়া,আনোয়ার হোসেন, জুনেদ আহমদ(পিয়ার আলী) ও খসরু মিয়া প্রমুখ।

 

সভায় বিশেষ আলোচক হিসেবে বাংলাদেশ থেকে অংশ গ্রহণ করেছিলেন চাউলধনী হাওর ও কৃষক বাঁচাও আন্দোলনের সদস্য সচিব মাস্টার বাবুল মিয়া।

 

সভার শেষে সর্ব সম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত হয়,হাওরের জীব বৈচিত্র ফিরিয়ে আনার লক্ষে,জমির মালিক ও কৃষক বাঁচানোর আন্দোলনকে এগিয়ে নিতে প্রবাস থেকে জোড়ালো ভূমিকা রাখার জন্য ইউকেতে চাউলধনী হাওর রক্ষা পরিষদের কমিঠি গঠন,যথা শিগ্রই লন্ডনস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস সহ বাংলাদেশে হাওর এবং জলমহাল সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় সহ অন্যান্য অফিসে স্মারকলিপি প্রেরণ,ইউকেতে মহামারী করোনা’র কারণে সভা-সমাবেশে কঠোর নিষেধাজ্ঞা থাকার কারণে পুনরায় আগামী রবিবার অনলাইনে হাওর পাড়ের প্রবাসীদের জোম সভার আয়োজন করা হবে এবং উক্ত সভা থেকে বাংলাদেশে চাউলধনী হাওর ও কৃষক বাঁচাও আন্দোলন কমিটির সাথে একাত্বতা করে আগামীদিনের কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

 

তাই উক্ত সিদ্ধান্ত সমূহ বাস্তবায়নের লক্ষে বিশিষ্ট কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব হাজি খলিল উদ্দিন, মোহাম্মদ মোহাব্বত শেখ, কদর উদ্দিন, মোঃ আজিম উদ্দিন আজির, হাবিবুর রহমান(জানু), আব্দুল হামিদ খান সুমেদ এবং শাহ সহিদ নূর ইসলাম কে উপস্থিত সবাই দায়িত্ব অর্পণ করেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ