দোয়ারাবাজারে ভুয়া সার্টিফিকেট ব্যবহার করে কলেজে চাকরী করার অভিযোগ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার, ২৯ ডিসে ২০২০ ০৭:১২

দোয়ারাবাজারে ভুয়া সার্টিফিকেট ব্যবহার করে কলেজে চাকরী করার অভিযোগ

দোয়ারাবাজার প্রতিনিধি:-  দোয়ারাবাজার উপজেলায় ভুয়া সার্টিফিকেট ব্যবহার করে এমপিওভুক্ত একটি কলেজে চাকরী করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার সকাল ১১টায় দোয়ারাবাজার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে এব্যাপারে একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন আইন ও মানবাধিকার সুরক্ষা ফাউন্ডেশনের সুনামগঞ্জ জেলা শাখার আহবায়ক মোঃ নুরুজ্জামান।

 

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার সুরমা ইউনিয়নে সমুজ আলী উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজে ভুয়া সার্টিফিকেট ব্যবহার করে লাইব্রেরীয়ান পদে তাহমিনা আক্তার নামে একজন মহিলা দীর্ঘদিন ধরে চাকরী করে আসছেন। অভিযোগ রয়েছে, তিনি দারুল ইহসান বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১০ সালের ডিগ্রী সনদপত্র ব্যবহার করে কলেজের লাইব্রেরীয়ান পদে কর্মরত আছেন। অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, মহামান্য হাইকোর্টের এক নির্দেশনায় ২০০৬ সালের পর থেকে দারুল ইহসান বিশ্ববিদ্যালয়ের গৃহীত সকল সার্টিফিকেট বাতিল বলে ঘোষণা করা হয়েছে যা নিয়ে একটি জাতীয় সংবাদপত্রে প্রতিবেদন প্রকাশ হয়েছে।

 

তারপরও এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১০ সালের সার্টিফিকেট ব্যবহার করে অবৈধভাবে তাহমিনা আক্তার স্থানীয় সমুজ আলী উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজে চাকরী করে আসছেন। এবিষয়ে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন অভিযোগকারী মোঃ নুরুজ্জামান।

এব্যাপারে দোয়ারাবাজার উপজেলা শিক্ষা অফিসার
আজাদুর রহমান জানান, বিষয়টি দুঃখজনক তদন্ত সাপেক্ষে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ