সিলেটে এবার তেল ও গ্যাস পাম্পে ধর্মঘটের ডাক

প্রকাশিত:বুধবার, ২৩ ডিসে ২০২০ ০১:১২

সিলেটে এবার তেল ও গ্যাস পাম্পে ধর্মঘটের ডাক

সুরমাভিউ:-  সিলেট বিভাগের তেলের পাম্পগুলোতে নিম্নমানের তেল সরবরাহ করায় অনির্দিষ্ট কালের ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম ডিলার্স, ডিস্ট্রিবিউটার্স এজেন্টস এন্ড পেট্রোল পাম্প ওনার্স এসোসিয়েশন। আগামী ২৭ ডিসেম্বর (রবিবার) সকাল থেকে ৬ দফা দাবিতে এই ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ।

দাবিগুলো হচ্ছে, জ্বালানী তেল বিপনন কোম্পানী কর্তৃক নিম্নমানের পেট্রোল সরবরাহ বন্ধ করতে হবে এবং পূর্বের ন্যায় সিলেট গ্যাস ফিল্ড এর উন্নত মানের পেট্রোল সরবরাহ করতে হবে।জ্বালানী তেলের মান নিয়ন্ত্রন করার জন্য সিলেটের প্রত্যেক ডিপোতে জ্বালানী তেল টেস্টিং ল্যাব স্থাপন করতে হবে। বিভিন্ন সরকারী সংস্থা কর্তৃক অন্যায় ও উদ্দেশ্যমূলক হয়রানী আচরন বন্ধ করতে হবে। সরকারী অধিদপ্তর কর্তৃক পেট্রোল পাম্পে অভিযান পরিচালনাকালে এসোসিয়শনের প্রতিনিধি ও তেল বিপনন কোম্পানীর প্রতিনিধির উপস্থিতি নিশ্চিত করতে হবে। সরকারী অধিদপ্তর কর্তৃক প্রদত্ত লাইসেন্স সমূহ নবায়ন সহজ করতে হবে। দুর্বৃত্ত পরায়ন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর এর কর্মকর্তা আমিরুল ইসলাম মাসুদকে অবিলম্বে সিলেট থেকে প্রত্যাহার করতে হবে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম ডিলার্স, ডিস্ট্রিবিউটার্স এজেন্টস এন্ড পেট্রোল পাম্প ওনার্স এসোসিয়েশন সিলেট বিভাগের সাধারণ সম্পাদক জুবায়ের আহমদ চৌধুরী। তিনি বলেন, আমরা সিলেট গ্যাস ফিল্ডের উৎপাদিত তেল বিক্রি করে আসছিলাম দীর্ঘদিন থেকে। কিন্তু কয়েকমাস থেকে সিলেটের পাম্পগুলোতে গ্যাস ফিল্ডের তেল না দিয়ে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের তেল দেয়া হচ্ছে। বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের তেল খুবই নিম্নমানের ও ভেজাল। যার কারণেই ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর অভিযান চালিয়ে আমাদের পাম্পগুলোতে জরিমানা করেছে।

তিনি আরও জানান, আমাদের দাবি অনেক পুরোনো। পূর্বের ন্যায় সিলেট গ্যাস ফিল্ডের উৎপাদিত তেল আমাদেরকে দিতে হবে। সেই সাথে চুক্তি বাতিল করতে হবে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের সাথে। যদি আমাদের দাবি মেনে না নেয়া হয় তাহলে ২৭ ডিসেম্বর (রবিবার) থেকে অনির্দিষ্ট কালের জন্য সিলেট বিভাগের সকল পেট্রোল পাম্প ও গ্যাস পাম্প বন্ধ থাকবে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ