প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে শিক্ষার্থীদের মধ্যে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করেন মানবতার শিক্ষক সুয়েবুর রহমান সুয়েব

প্রকাশিত:বুধবার, ১৬ ডিসে ২০২০ ০৬:১২

প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে শিক্ষার্থীদের মধ্যে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করেন মানবতার শিক্ষক সুয়েবুর রহমান সুয়েব

সুরমাভিউ:-  মহান বিজয় দিবসে সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য সূর্য্যসন্তান, বিশ্বনেতা ধরণিকন্যা শেখ হাসিনার পক্ষে ব্যক্তিগত উদ্যোগে শিক্ষা উপকরণসহ ইন্টারনেট ডাটা বিতরণ করেন সিলেট মদনমোহন কলেজের প্রভাষক ও ধর্মপাশা উপজেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক মোহাম্মদ সুয়েবুর রহমান সুয়েব।

করোনা ভাইরাস মহামারিতে সারা বিশ্বের ন্যায় বাংলাদেশেও মানুষের অর্থনৈতিক অবস্থা নাজুক হয়ে পড়ে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারাদেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অন লাইন ও টেলিভিশনের মাধ্যমে ক্লাসের ব্যবস্থা করে ছাত্রদের পড়াশুনা অব্যাহত রেখেছেন। তিনি দেশকে করোনা ভাইরাস মোকাবেলা করে স্বভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে আনার জন্য সব ধরনের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। প্রভাষক সুয়েব বলেন, ছাত্ররা আমাদের আগামীর বাংলাদেশ গড়বে, তাঁরা শিক্ষা লাভ করে দেশের মাটি ও মানুষের জন্য কাজ করবে। বিদেশের মাটিতেও বাংলাদেশের সুনাম বয়ে আনবে। শেখ হাসিনার নির্দেশ বাস্তবায়নে এবং অনলাইন কার্যকক্রকে উৎসাহ দেয়া ও পড়ালেখায় মনোনিবাসের জন্য সব সময় ছাত্রদের পাশে আছি। অনলাইনে ক্লাস নিয়ে ছাত্রদের উৎসাহ উদ্দিপনা ও প্রেরণা দিচ্ছি।

ব্যক্তিগত উদ্যোগে কলেজের বেতন ও পরিবার থেকে জনকল্যাণে ব্যয় করে যাচ্ছি।

১৬ ডিসেম্বর বুধবার সিলেট কেন্দীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে অসচ্ছল ও মেধাবী উচ্চ মাধ্যমিক, বিবিএস (পাস), বিবিএ (অনার্স) ১ম, ২য়, ৩য়, ৪র্থ বর্ষ, এমবিএ ১ম ও এমবিএ শেষ বর্ষের হিসাববিজ্ঞান ও ব্যবস্থাপনা শিক্ষার্থীদের বই, খাতা, ইন্টারনেট ডাটা, কলম, পেন্সিল ও নগদ টাকা বিতরণ করেন এবং লামাবাজার, টিলাগড়, মদিনা মার্কেট, আম্বরখানা, লন্ডনী রোড, বন্দরবাজার, সুবিদবাজার ও পাঠানটুলাসহ বিভিন্ন পাড়া ও মহল্লায় ছাত্রদের মাঝে এ সকল শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ করেন। প্রভাষক মোহাম্মদ সুয়েবুর রহমান বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অত্যন্ত সাহসী ও শক্তিশালী নেতা। তাঁর ডায়নামিক নেতৃত্বে পদ্মা নদীর বুকে স্বপ্নের সেতু আজ বাস্তবের শেষ প্রান্তে, এটা সরকার প্রধান শেখ হাসিনার বড় অর্জন। আমরা শহীদ মিনারে এসে যে কোন দাবি ও অধিকার আদায়ের জন্য সমবেত হই।আমি একজন শিক্ষক ও সাধারণ মানুষ হিসেবে আজ আমার ছাত্রদের নিয়ে মহান বিজয় দিবসে সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পদ্মার বুকে নির্মিত সেতু “শেখ হাসিনা সেতু” নামকরণের জন্য বাংলাদেশ সরকারের কাছে দাবি ও অনুরোধ জানান।

প্রভাষক সুয়বের এ কার্যক্রমের সাথে জড়িত থেকে সহযোগিতা করেন একদল তরুন শিক্ষার্থী, এমবিএ শেষ পর্বের এনামুল হক জুবেল, সৈয়দ সাফওয়ান হোসেন, জুনায়েদ আহমেদ, আহমদ আল দবির, আফসান চৌধুরী, মোঃ নিলয় তালুকদার, বিবিএ শেষ বর্ষের ছাত্রী আয়শা সিদ্দিকা, আইনজীবী মোঃ সাজু আহমদ, ব্যাংকার জায়েদুর রহমান, শিক্ষক সতীস পাল, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সাফকাত হোসাইন বাবু প্রমুখ।

প্রভাষক সুয়েব সকলকে বিজয়ের শুভেচ্ছা ও নিরাপদ দূরত্ব-স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাচলের জন্য অনুরোধ জানান। বিজ্ঞপ্তি