সুনামগঞ্জের চলতি নদীতে দিনদুপুরে অবৈধ  ড্রেজার মেশিন দিয়ে চলছে বালু ও পাথর উত্তোলন

প্রকাশিত:বুধবার, ২৫ নভে ২০২০ ০৯:১১

সুনামগঞ্জের চলতি নদীতে দিনদুপুরে অবৈধ  ড্রেজার মেশিন দিয়ে চলছে বালু ও পাথর উত্তোলন

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:-  সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার জাহাঙ্গীর নগর ইউনিয়নের কাইয়ারগাওঁ গ্রামে  চলতি নদীতে অবৈধ ড্রেজার মেশিন বসিয়ে নদীরপাড় কেটে প্রতিনিয়ত লাখ লাখ টাকার বালু ও পাথর উত্তোলন করে আসছে কাইয়ারগাও গ্রামের  একটি প্রভাবশালী চক্র। প্রশাসনের কঠোর নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে এভাবে নদীর পাড় কেটে বালু পাথর উত্তোলন করে আসছে এই প্রভাবশালি চক্রটি  । ফলে গুটি কয়েক জন রাতারাতি লক্ষলক্ষ টাকার মালিক হয়েযায়। তাই নদীতে অবৈধ প্রভাব বিস্তারে তাদের অনুসারিরা তুচ্চবিষয়কে কেন্দ্র করে  মারামারি হানাহানি করে আসছে।তাদের অত্যাচার আর নির্যাতনে অতিষ্ট হয়ে পড়েছেন কাইয়ারগাওঁ গ্রামের নিরীহ লোকজন। প্রতিনিয়ত এই গ্রামের নদীর পাড় কেটে বালু ও পাথর উত্তোলন করার সময় পুলিশ অভিযান পরিচালনা করলেও তামছে না তাদের তান্ডব।

সরেজমিনে কাইয়ারগাঁও গ্রামে গিয়ে দেখা যাচ্ছে প্রশাসনের চোখ ফাকিঁ দিয়ে দিনদুপুরে অবৈধভাবে বেশ কয়েকটি ড্রেজার মেশিন লাগিয়ে নদীর পাড় কেটে প্রকাশ্যে দিবালোকে লাখ লাখ টাকার  বালু ও পাথর উত্তোলন করে নিয়ে যাচ্ছে কাইয়ারগাওঁ গ্রামের  প্রভাবশালী চক্র।

এই চক্রের অত্যচার আর নির্যাতনে কাইয়ারগাওঁ গ্রামের নিরীহ লোকজন কারো প্রতিবাদ করার সাহস না থাকায় তারা বালু ও পাথর উত্তোলন অব্যাহত রাকায় একদিকে যেমন নদীর ভাঙ্গনে বিলিন হবে কাইয়ারগাঁও গ্রাম।তেমনি ভিটামাটি ছারা হবে চলতিনদীর পারের মানুষ। ইতিমধ্যে ভাম্যমান আদালতের মাধ্যমে কয়েকবার অভিযান চালিয়ে বেশ কয়েকটি বলগেট নৌকা আটক করে জরিমানা করে অবৈধ ড্রেজার মেশিন পুড়িয়ে ফেলা হয়।তার পরেও থেমে নেই এইচক্রটি। আইনপ্রয়োগকারি সংস্থার চোখ ফাঁকি দেদারছে চালিয়ে যাচ্ছে অবৈধ্য ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালুউত্তোলনের কাজ।   বালু পাথর উত্তোলনের মাধ্যমে কাঁচাটাকা হাতে আসায়  জিরো থেকে হিরো বনে যাওয়া চক্রটি বেপরোয়া হয়ে উটছে দিনদিন।

সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. সহীদুর রহমান সত্যতা নিশ্চিত করে জানান নদীর পাড় কেটে বালু ও পাথর উত্তোলনে প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা  অমান্য করে  যারা নদীর পাড় কেটে বালু ও পাথর উত্তোলন করবে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যাবস্তা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ