জগন্নাথপুরে ২ দিনের কন্যা সন্তানকে হাসপাতালের সিঁড়িতে রেখে পালিয়ে গেলেন মা

প্রকাশিত:সোমবার, ০৯ নভে ২০২০ ০৪:১১

জগন্নাথপুরে ২ দিনের কন্যা সন্তানকে হাসপাতালের সিঁড়িতে রেখে পালিয়ে গেলেন মা

মোঃ আলী হোসেন খাঁন, জগন্নাথপুর:-  সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে নবজাতকে হাসপাতালের ২য় তলায় সিঁড়িতে রেখে পালিয়ে গেলেন মা। গত শনিবার ৭ নভেম্বর ছাইদা বেগম (১৬) নামের এক কিশোরী জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়। ঐদিন বিকাল ৩ ঘটিকার সময় ছাইদা বেগম এক কন্যা সন্তান প্রসব করেন।

 

জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্র জানায়, শনিবার বিকেলে সন্তান সম্ভবা স্ত্রী সাইদা বেগমকে নিয়ে উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের বালিকান্দি গ্রামের ফারুক মিয়াকে স্বামী হিসেবে পরিচয় দিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন। বিকেলে একটি ফুটফুটে কন্যা সন্তানের জন্ম হয়।
সন্তানটিকে হাসপাতালে ভর্তি রেখে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করা হচ্ছিলো।

 

এক পর্যায়ে শিশুটির মা সন্ধ্যার পর শিশুটিকে হাসপাতালের সিঁড়িতে রেখে গোপনে পালিয়ে যান। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার মধুসূদন ধর জানান, শনিবার বিকেলে সন্তান সম্ভাবা নারীর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসক ও নার্সদের তত্বাবধানে নরমাল ডেলিভারি হয়।

 

শিশুটি ভর্তি রেখে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করা হচ্ছিলো। কোন এক সুযোগে শিশুটিকে হাসপাতালে রেখে পালিয়ে যায় শিশুটির মা। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ও সেবিকার নজরে এলে শিশুর বাবা মায়ের খোঁজ শুরু করা হয়। অনেক খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে জগন্নাথপুর থানায় সাধারণ ডায়েরী করা হয়।

 

কলকলিয়া ইউনিয়নের বালিকান্দি গ্রামের বাসিন্দা ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আকব্দুল হাশিম জানান, বালিকান্দি গ্রামে খুঁজ করে এই নামের কাউকে পাওয়া যায়নি। মনে হয় হাসপাতালে ভুল তথ্য দিয়ে ভর্তি হয়েছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ