মোবাইল ও বিশ হাজার টাকার জন্য ছুরিকাঘাত করা হয় জাকারিয়াকে

প্রকাশিত:শুক্রবার, ০৬ নভে ২০২০ ০১:১১

মোবাইল ও বিশ হাজার টাকার জন্য ছুরিকাঘাত করা হয় জাকারিয়াকে

কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি:-  সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার ইসলামপুরে ছিনতাইকারীরা টাকা ও মোবাইলের জন্যে জাকারিয়াকে ছুরিকাঘাত করে। পরে তারা তার সাথে থাকা ২০ হাজার টাকা ও মোবাইল নিয়ে পালিয়ে যায়।

 

এ ঘটনায় জড়িত থাকা আশিক মিয়া (১৮) আদালতে এমন তথ্য নিশ্চিত করেছে। সে কোম্পানীগঞ্জ গ্রামের কালা মিয়ার পুত্র। বৃহস্পতিবার রাতে কোম্পানীগঞ্জ থানার পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে। এর আগে এই মামলায় টুকেরগাঁও গ্রামের আবু সাইদের পুত্র সাহাব উদ্দিন সিহাব নামের আরো একজনকে ৪ নভেম্বর আটক করা হয়েছে।

 

উল্লেখ্য জাকারিয়া কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার টুকেরবাজারে তার এক আত্মীয়ের নিত্যপণ্যের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের বিক্রয় প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করত। গত সোমবার (২ নভেম্বর) রাত ৭টার দিকে নরসিংদী জেলার রায়পুরা উপজেলার মধ্যনগর গ্রামের শাহ নুরের পুত্র জাকারিয়া (২৫) বিভিন্ন দোকান থেকে পণ্য বিক্রয়ের ২০ হাজার টাকা সংগ্রহ করে ইসলামপুর হয়ে নিজের কর্মস্থলে ফিরছিলেন। পথিমধ্যে হঠাৎ একটি মোটরসাইকেল থেকে তিন যুবক নেমে তার গতিরোধ করে। এসময় এক যুবক পিছন দিক থেকে জাকারিয়ার পাজরের বাঁ পাশে ছোরা ঢুকিয়ে দেয়। দুর্বৃত্তরা জাকারিয়ার কাছ থেকে একটি মুঠোফোন এবং মানিব্যাগ ছিনিয়ে নেয়। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে কোম্পানীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে সিলেটের এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৩ নভেম্বর তার মৃত্যু হয়।

 

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে এম নজরুল বলেন, আশিককে আটক করার মাধ্যমে এই ঘটনার মূল রহস্য উদঘাটন হয়েছে। তারা ৩ জন মিলে জাকারিয়াকে ছিনতাই করেতে গিয়েছিল। এ ঘটনায় জড়িত থাকায় ২ জনকে আটক করা হয়েছে। বাকি আসামী ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ